আজ || শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম :
  নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন লন্ডন প্রবাসী তাজউদ্দিন সেকান্দার       ফেনীর দাগনভূঞায় পল্লী উদ্যোক্তাদের মাঝে বিআরডিবি’র ঋণ বিতরণ        ফেনী জেলা পুলিশের সাপ্তাহিক মাস্টার প্যারেড অনুষ্ঠিত       দাগনভূঞা সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট’র ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত       বাহরাইন বিএনপির উদ্যোগে ঈদ পূর্ন মিলন ও আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত       ফেনীর দাগনভূঞায় দু’দিনের প্রশিক্ষণ শেষে কৃষকদের মাঝে গাছের চারা ও বীজ বিতরণ       ফেনীর দাগনভূঞায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত       ফেনীর দাগনভূঞায় তথ্য আপা’র উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত       ফেনীর দাগনভূঞায় পাইথন প্রোগ্রামিং বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন       ফেনী ইউনিভার্সিটিতে ক্যারিয়ার এক্স প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত    
 


পেটের ভেতরে করে ইয়াবা পাচার: পায়ুপথে অপসারণ

বিশেষ প্রতিবেদক:

ফেনীতে পেটের ভেতরে করে ইয়াবা পাচারকালে ৪ হাজার পিস ইয়াবাসহ ৩ মাদক কারবারিকে আটক করেছে ফেনী মডেল থানা পুলিশ।বৃহস্পতিবার ৯ নভেম্বর সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দক্ষিণ চাড়িপুর অংশের পল্লী বিদ্যুৎ সাব-স্টেশনের সামনে তল্লাশি চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। পরবর্তীতে বিশেষ কৌশলে পায়ুপথ দিয়ে অপসারণ করে ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

আটকৃতরা হলেন দ্বীন মোহাম্মদ সাগর ( ১৯), সঞ্চিতা বেগম (২৫) ও খালেদা বেগম (২৭)। আটককৃতরা সকলে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার বাসিন্দা। পুলিশ সূত্র জানায়, তল্লাশীর সময় সন্দেহ হলে জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা স্বীকার করে বিশেষ কায়দায় পেটের ভেতর করে তারা ইয়াবা পাচার করছে। পরে তাদের ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে এক্সরে করা হলে তাদের পেটে দানাদার বস্তু দেখা যায়। পরবর্তীতে আসামিদের থানায় নিয়ে বিশেষ কৌশলে তাদের পেট থেকে ছোট ছোট পোটলা আকারে ৪ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করে জব্দ করা হয়। জব্দকৃত ইয়াবার বাজার মূল্য প্রায় ১২ লাখ টাকা।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শহীদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, ফেনী মডেল থানাধীন এলাকার ঢাকা- চট্রগ্রাম মহাসড়কে তল্লাশী চালিয়ে ৩ মাদক কারবারিকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা স্বীকার করে তারা কলা খাওয়ার মাধ্যমে বিশেষ কায়দায় পেটে ইয়াবা বহন করে। পরবর্তীতে পায়ুপথ দিয়ে বিশেষ কৌশলে তাদের পেটে থেকে ৪ হাজার পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তারা জানিয়েছে এসব ইয়াবা তারা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় নিয়ে বিক্রি করে থাকে। আসামিদের মামলা দায়ের করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি৷


Top